Advertisements

চিয়া সিড এর দাম কত | চিয়া বীজের দাম

Advertisements
Rate this post

নমস্কার বন্ধুরা আজকে আমি আপনাদের দেখিয়ে দেব বর্তমান বাংলাদেশের চিয়া সিড বা চিয়া বীজের দাম কত করে চলছে। চিয়া সিট একটি হাই প্রোটিন যুক্ত খাবার যেটি সাধারণত রমজান মাসে প্রচুর মানুষ ব্যবহার করে থাকে বা খেয়ে থাকে। বন্ধুরা আজকে আমি আপনাদের চিয়া সিডের বাঁচিয়া বীজের বর্তমান দাম প্রতি ১ গ্রাম থেকে এক কিলো তে কত করে দাম এছাড়াও চিয়া সিট বা চিয়া বীজের উপকারিতা এবং জিয়া বিজ যা আপনারা কোথা থেকে পাবেন বিস্তারিত জানিয়ে দেবো।

জিয়া বীজের দাম

বন্ধুরা আপনারা যদি চিড়া বীজ বা চিয়া সিড কিনতে চান তাহলে বর্তমান দাম হয়েছে প্রতি এক গ্রামে এক টাকা অর্থাৎ আপনি যদি এক গ্রাম চিয়া বীজ কেনেন তাহলে আপনাকে প্রতি গ্রামে এক টাকা এবং প্রতি কিলো তে এক হাজার টাকা করে দিতে হবে তবে বিভিন্ন কোয়ালিটির পাওয়া যায়। আবার কিছু কিছু চেয়ারি যাচ্ছে যেগুলির গুণগতমান কম তার দাম তুলনামূলকভাবে অনেকটা কম হয়ে থাকে।

চিয়া সিডের দাম
চিয়া সিড বা বীজ কি?

Chia Seeds বা চিয়া বীজ হচ্ছে সালভিয়া হিস্পানিকা নামক মিনট প্রজাতির উদ্ভিদের বীজ। চিয়া সিডস মুলত মধ্য আমেরিকা ও মেক্সিকোর মরুভূমি অঞ্চলে বেশি জন্মায়। প্রাচীন অ্যাজটেক জাতির খাদ্য তালিকায় এটি অন্তর্ভুক্ত বলে বিশেষজ্ঞরা দাবি করে থাকে। এগুলো দেখতে অনেকটা তোকমা দানার মতো।

পৃথিবীর পুষ্টিকর খাবারগুলোর মধ্যে চিয়া সিড অন্যতম। অ্যাজটেক জাতির লকজন মনে করতো এইত তাদের সক্তি ও সাহস জোগাবে। তারা একে সোনার চেয়েও মুল্যবান মনে করতো।

এতে রয়েছে ওমেগা-৩, ফাইবার, ম্যাংগানিজ, ফসফরাস, প্রোটিন, ফ্যাট, কার্বো হাইড্রেট। পাশাপাশি এতে রয়েছে, ভিটামিন বি, থায়ামিন, নিয়াসিন আয়রন, দস্তা, ক্যাফিক এসিড, ম্যাগনেসিয়াম।

চিয়া বীজ খাওয়ার উপকারিতা

বিশেষজ্ঞদের মতে প্রতি ২৮ গ্রাম চিয়া সিডে রয়েছে ১১ গ্রাম ফাইবার, ৪ গ্রাম প্রোটিন, ফ্যাট ৯ গ্রাম (যার ৫ গ্রাম ওমেগা ৩)। এছাড়াও রয়েছে ক্যালসিয়াম, ম্যাংগানিজ, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস,, জিঙ্ক, ভিটামিন-বি, পটাশিয়াম, ভিটামিন বি-১, ভিটামিন বি-২। চলুন এ পর্যায়ে Chia seeds বা বীজ খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক-

১) প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট
চিয়া সিডস এ রয়েছে প্রচুর পরিমান অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। যা আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ইতিবাচক প্রভাব নিয়ে আসবে। যদিও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট নিয়ে গবেষকদের ভিন্ন ভিন্ন মতামত রয়েছে।

২) প্রোটিন চাহিদা পূরণ
এতে রয়েছে উচ্চমাত্রার প্রোটিন। যা আমাদের দেহের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় ও উপকারী। আমরা সাধারণত মাছ মাংস থেকে প্রোটিন আহরন করে থাকি। আজকাল বাজারে ভেজাল পন্যের ছড়াছড়ি। আপনার শরীরের প্রোটিনের চাহিদা মেটাতে চিয়া হতে পারে একটি দারুন সমাধান। প্রতি ২৮ গ্রাম পরিমান চিয়া সিডে প্রায় ৪ গ্রাম প্রোটিন পাওয়া যায়।

৩) হাড়ের সুস্থতা
হাড়ের সুস্থতার জন্য প্রোটিনের পাশাপাশি পর্যাপ্ত ক্যালসিয়ামও প্রয়োজন। বিশেষজ্ঞদের মতে প্রোটিনের পাশাপাশি Chia seeds এ রয়েছে ক্যালসিয়াম, ফসফরাস যা হাড়ের সুস্থতা নিশ্চিতে সাহায্য করে।

৪) ফ্যাটি অ্যাসিডের উৎস
গবেষকরা দাবি করেন Chia seeds এ স্যালমন মাছের চেয়েও বেশি ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে। যা আপনার হার্ট সুস্থ রাখতে সহায়তা করে।

৫) ওজন কমাতে সাহায্য করে
প্রোটিনের পাশাপাশি এতে রয়েছে উচ্চ মাত্রায় ফাইবার। ফাইবার প্রচুর পরিমান পানি শোষণ করে। এতে আপনার পেট ভরা ভরা মনে হবে। আর এই কারনের আপনার ক্ষুদা কম মনে হবে। বা অল্প খেলেই পেট ভরে গেছে বলে মনে হয়। যা আপনাকে কম ক্যালরি গ্রহনে তথা ওজন কমাতে সাহায্য করে। ওজন কমানোর উপায় পড়ুন এখানে।

চিয়া সিড বা বীজ খাওয়ার নিয়ম
সুপারফুড হিসেবে খ্যাত এই পুষ্টিকর খাবারটি নানা ভাবে খাওয়া যায়। চলুন এ পর্যায়ে Chia seeds খাওয়ার বিভিন্ন উপায় সম্পর্কে জেনে নাওয়া যাক-

১) স্মুথি বানিয়ে
চিয়া খাওয়ার সবে চেয়ে জনপ্রিয় উপায় হচ্ছে স্মুথি বানিয়ে খাওয়া। আপনি চাইলে টক দই, চিয়া সিড, ও শসা দিয়ে স্মুথি বানিয়ে খেতে পারেন। অথবা ব্লেন্ডার এর সাহায্যে কলা, খেজুর, বাদাম ও চিয়া বীজ এর স্মুথি বানিয়ে খাওয়া যেতে পারে।

২) সালাদ
কি অবাক হয়ে গেলেন চিয়ার আবার সালাদ হয় নাকি। অবাক হয়ার কিছু নেই, আপনি চাইলে বাসায় যে রেগুলার সালাদ বানান তার সাথে পরিমান মত চিয়া বীজ নিয়ে নিতে পারেন।

৩) ড্রিংকস
জি কোমল কিংবা হার্ড ড্রিংকস এর কথা বলছি না। চিয়া ড্রিংকস এর কথা বলছি। ২ কাপ পরিমান নারিকেলের পানি কিংবা পছন্দ মতো ফলের রসের সাথে ২ থেকে ৩ তেবিল চামচ চিয়া বীজ দিয়ে মিশ্রন বানিয়ে নিন। প্রয়োজনে পানিও যোগ করতে পারেন।

Related Posts