Advertisements

আহসান মঞ্জিল সময়সূচী ২০২৩

Rate this post

আসসালামুয়ালিকুম বন্ধুরা আপনারা কেমন আছেন আশা করছি আপনারা প্রত্যেকেই ভালো আছেন ও সুস্থ আছেন। আজ আমরা আপনাদের এই পোষ্টের মাধ্যমে জানিয়ে দেব আহসান মঞ্জিল সময়সূচী ২০২৩ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। বন্ধুরা আহসান মঞ্জিল জাদুঘর সম্পর্কে আমাদের প্রত্যেকেরই যানা। যা ছাত্র-ছাত্রীদের অত্যন্ত প্রিয় এবং শিক্ষামূলক একটি অতি জনপ্রিয় স্থান। তো বন্ধুরা চলুন জেনে নেওয়া যাক আহসান মঞ্জিল সময়সূচী এবং টিকিটের মূল্য সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

আহসান মঞ্জিল সময়সূচী

  • গ্রীষ্মকালীন সময়সূচী: (এপ্রিল-সেপ্টেম্বর) – (শনিবার-বুধবার) সকাল ১০.৩০ টা – বিকাল ৫.৩০ টা। শুক্রবার- বিকেল ৩.০০ টা – সন্ধ্যা ৭.৩০ টা।
  • শীতকালীন সময়সূচী: (অক্টোবর –মার্চ) – (শনিবার-বুধবার) সকাল ৯.৩০ টা – বিকাল ৪.৩০ টা। শুক্রবার – দুপুর ২.৩০ টা – সন্ধ্যা ৭.৩০ টা।
  • বৃহস্পতিবার – সাপ্তাহিক ছুটি ও অন্যান্য সরকারি ছুটির দিন জাদুঘর বন্ধ থাকবে।

আহসান মঞ্জিল টিকিট মূল্য

Advertisements

প্রাপ্ত বয়স্ক বাংলাদেশি দর্শক = ৫ টাকা জনপ্রতি, অপ্রাপ্ত বয়স্ক বাংলাদেশি শিশু দর্শক (১২ বছরের নিচে) = ২ টাকা জনপ্রতি, সার্কভুক্ত দেশীয় দর্শক = ৫ টাকা জনপ্রতি, অন্যান্য বিদেশি দর্শক = ৭৫ টাকা জনপ্রতি, উল্লেখ্য যে, প্রতিবন্ধি দর্শকদের জন্য কোন টিকিটের প্রয়োজন হয় না ও পূর্ব থেকে আবেদনের ভিত্তিতে ছাত্র-ছাত্রীদের বিনামূল্যে জাদুঘর দেখতে দেয়া হয়।

তো বন্ধুরা আপনারা উপরিউক্ত পোষ্ট থেকে আহসান মঞ্জিল সময়সূচী এবং টিকিটের মূল্য সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে জানতে পেরেছেন। যা আপনাদের অত্যন্ত উপকারে লাগবে বলে আমরা মনে করি। এছাড়াও আপনার যদি এই ধরনের কনটেন্ট আরো পেতে চান তাহলে অতি অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে সদা সর্বদা দূরে থাকুন।

অন্যদিকে আপনার যদি বিভিন্ন দেশের টাকার মূল্য বাংলাদেশি টাকায় কত সে সম্পর্কে জানতে চান এবং প্রত্যেকদিনের সোনার মূল্যের আপডেট সঠিকভাবে সবার আগে পেতে চান তাহলে অতি অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইট আবারো ভিজিট করবেন। আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করার জন্য আপনাকে অসংখ্য অসংখ্য ধন্যবাদ। 🙏

আহসান মঞ্জিল কি?

আহসান মঞ্জিল হল একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় জাদুঘর অথবা মিউজিয়াম। যা স্কুল ছাত্র-ছাত্রীদের অত্যন্ত প্রিয় একটি শিক্ষামূলক স্থান।

আহসান মঞ্জিল যেতে গেলে আপনাকে কোন রাস্তা অবলম্বন করতে হবে?

আহসান মঞ্জিল যাবার সবচেয়ে সহজ রাস্তা হল সদরঘাট। ঢাকার যেকোনো প্রান্ত থেকে সদরঘাটে সড়ক পথে বাসে করে যাওয়া যায়। এরপর আপনি মাত্র ২০ টাকা রিকশা ভাড়ায় আহসান মঞ্জিল যেতে পারবেন। অবশ্য সদরঘাট থেকে আহসান মঞ্জিল খুবই অল্প দুরত্বে হওয়াই পায়ে হেটে যাওয়ায় বুদ্ধিমানের কাজ। কারন সরু রাস্তায় সাধারণত প্রচুর জ্যাম হয়ে থাকে। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পেছনের রাস্তা দিয়ে একটুখানি হেটে গেলেই আপনি আপনার কাঙ্খিত গন্তব্যে পৌঁছাতে সক্ষম হবেন।

Related Posts